মাত্র দুটো হাদিস আদম সন্তানের চোখ খুলে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট হবে, ইনশাআল্লাহ্।

হাদিসে কুদসিতে আল্লাহ্ তা’আলা আমাদের বলছেন-

হে আদম সন্তান, আমার ইবাদতের জন্য তুমি (অন্যান্য কাজ হতে) অবসর হও এবং ইবাদতে মন দাও, তাহলে আমি তোমার অন্তরকে প্রাচুর্য দিয়ে ভরে দেব এবং তোমার দারিদ্র ঘুচিয়ে দেব। আর যদি তা না কর, তবে তোমার হাতকে ব্যস্ততায় ভরে দেব এবং তোমার অভাব কখনোই দূর করব না।” [তিরমিযি: ২৬৫৪, ইবনে মাজাহ: ৪১০৭ (সহিহ)]

দুনিয়াতে এমন কোনো মানুষ পাওয়া যাবে না, যে এই জীবন নিয়ে পরিতৃপ্ত কিংবা যার মন সর্বদা প্রফুল্ল থাকে। প্রতিটি মানুষই জীবনের বিভিন্ন দিক থেকে ডিপ্রেশন ফেইস করছে, অনেকে নীরবে চোখের পানি ঝরাচ্ছে। সকল মানুষের মাঝে এমন একটা শ্রেণি আছে, যারা দুনিয়ার বিভিন্ন না-পাওয়ার বেদনার মাঝেও অন্তরে একপ্রকার প্রশান্তি নিয়ে জীবন কাটাচ্ছে। তারা কারা?

যারা আল্লাহর আনুগত্যে দিনাতিপাত করছে, সর্বাবস্থায় সবরের উপর অটল থাকছে এবং আখিরাতে উত্তম বিনিময়ের প্রত্যাশায় রয়েছে।

রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া-সাল্লাম বলেন,

যার জীবনের চিন্তা (লক্ষ্য) হবে আখিরাত আল্লাহ্ তার অন্তরে সচ্ছলতা দিবেন। তার কর্মকাণ্ড গুছিয়ে দিবেন এবং দুনিয়া (নেয়ামত) অনুগত ও বাধ্য হয়ে তার নিকট আসবে। আর যার চিন্তা (লক্ষ্য) হবে দুনিয়া, আল্লাহ্ তার দুচোখের মাঝে দারিদ্র রেখে দিবেন, তার কর্মকাণ্ড বিক্ষিপ্ত করে দিবেন (ফলে সে অস্থিরতায় কাতরাবে) এবং দুনিয়া থেকে সে ততটুকুই অর্জন করতে পারবে, যা তার জন্য পূর্বনির্ধারিত।” [তিরমিযি: ২৪৬৫, সিলসিলা সহিহাহ: ৯৪৯-৯৫০ (সহিহ)]

ডিপ্রেশনে আছেন?সুখ দরকার?

এই নেন প্রেসক্রিপশন। উপরের দুটো হাদিসের উপর কিছুদিন আমল করে দেখুন। এরপর নিজেই বুঝতে পারবেন, আল্লাহ্ এবং তাঁর রাসূল আমাদের জন্য কত সহজ সমাধান বাতলে দিয়েছেন।

খুব সহজ একটি হিসাব বুঝতে হবে।

আমরা পণ্য ক্রয় করতে কোথায় যাই? যেখানে পণ্য পাওয়া যায়–দোকানে–যাই।
এবার বলুন, সুখ-শান্তির মালিক কে? আল্লাহ্ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা। সুতরাং শান্তির জন্য তাঁর কাছেই ফিরে আসতে হবে। এটিই চূড়ান্ত কথা। বাকি যত পথ ও পন্থাই অনুসরণ করুন-না কেন, সাময়িক ফূর্তি পেলেও দিনশেষে আপনি একাই হয়ে যাবেন। ডিপ্রেশন আপনাকে পাকড়াও করবেই। ফিরে আসুন আল্লাহর দিকে। তিনি ব্যতীত আমাদের সত্যিকারের আপন বলতে কেউ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *